করোনাঃ লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত ভাড়াটিয়াদের এক মাসের ভাড়া মওকুফের দাবি

Varatia

দেশে দিন দিন বেড়েই চলেছে মহামারি করোনার তাণ্ডব, লকডাউনে গোটাদেশ। লকডাউনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দোকানদার ও কর্ম হারিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভাড়াটিয়াদের এক মাসের দোকান ও বাড়ি ভাড়া মওকুফে সরকার ও বাড়িওয়ালাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ভাড়াটিয়া পরিষদ।

রোববার (১১ এপ্রিল) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানান সংগঠনটির সভাপতি মো. বাহারানে সুলতান বাহার।

বিজ্ঞপ্তিতে বাহারানে সুলতান বাহার বলেন, দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার গত ৫ এপ্রিল থেকে সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করে। আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে দেশে সর্বাত্মক লকডাউনের চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। কিন্তু লকডাউনের ফলে দেশের নিম্নমধ্যবিত্ত শ্রেণি কর্ম হারিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে, সে ভাবনা কেউ ভাবছে না। আমরা এই মানবিক সংকট থেকে উত্তরণে ক্ষতিগ্রস্তদের এক মাসের দোকান ভাড়া ও বাড়ি ভাড়া মওকুফে সরকার ও বাড়িওয়ালাদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, সারাদেশে পোশাকশিল্পসহ বিভিন্ন শিল্প-কারখানায় লকডাউনের ফলে যদি ছুটি ঘোষণা করা হয় তাহলে কোন শ্রমিকের বেতন যেন কর্তন না হয় যে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি। পাশাপাশি ঈদের আগেই শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের জোর দাবি জানাচ্ছি।

ভাড়াটিয়া পরিষদের সভাপতি বলেন, লকডাউন ও পবিত্র রমজান মাসকে কেন্দ্র করে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজারে অস্থিতিশীলতা তৈরি করে পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করছে। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং লকডাউনে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি এড়াতে বিশেষ রেশনিং ব্যবস্থার মাধ্যমে ন্যায্য মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহের জোর দাবি জানাচ্ছি।