মেসি-নেইমাররা নেবেন চীনের তৈরি ভ্যাকসিন

লুইস সুয়ারেজ, লিওনেল মেসি ও নেইমার। পুরোনো ছবি

কোপা আমেরিকা ফুটবল টুর্নামেন্টের আর মাত্র এক মাস বাকি, এরপরই মাঠে গড়াতে যাচ্ছে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই টুর্নামেন্ট। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার আয়োজকরা কঠোর নিয়মের মধ্য দিয়ে টুর্নামেন্টটি আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকের বাধ্যতামূলক করা হয়েছে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণ।

কোপায় খেলার জন্য আগামী সপ্তাহে ভ্যাকসিন নিবেন লিওনেল মেসি, নেইমার জুনিয়ররা। তারা নেবেন চীনের তৈরি সিনোভ্যাক ভ্যাকসিন। লাতিন ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল ইতিমধ্যেই ৫০ হাজার ডোজ করোনার টিকা পেয়েছে। সংস্থার প্রেসিডেন্ট আলেহান্দ্রো দোমিঙ্গেস বলেছেন, ‘প্রতিষেধক নেওয়া ফুটবলার ও অন্যান্য কর্মকর্তারা বাড়তি নিরাপত্তা পাবেন। সকলেই জানেন, একটা দল কখনোই শুধু ফুটবলারদের নিয়ে গড়া হয় না। এই কারণেই সকলকে এই প্রতিষেধক নেওয়ার সুযোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

তবে আর্জেন্টিনা সরকার চীনের তৈরি এই ভ্যাকসিন এখনো অনুমোদন দেয়নি। যার কারণে মেসিরাসহ আর বেশ কয়েকটি দেশের ফুটবলারও এর সঙ্গে যুক্ত কর্মকর্তা কর্মচারীগণ উরুগুরে গিয়ে ভ্যাকসিন গ্রহণ করবে বলেও জানা গেছে।

যৌথভাবে আসন্ন এই আসর আয়োজন করছে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া। ‘এ’ গ্রুপে আর্জেন্টিনার সঙ্গে রয়েছে বলিভিয়া, উরুগুয়ে, চিলি ও প্যারাগুয়ে। ঘরের মাঠে উদ্বোধনী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে মাঠে নামবেন মেসিরা। ‘বি’ গ্রুপে ব্রাজিলের সঙ্গে কলম্বিয়া, ভেনেজুয়েলা, ইকুয়েডর ও পেরু রয়েছে। ব্রাজিলের প্রথম ম্যাচ ১৪ জুন ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে। আসরটির ফাইনাল ১০ জুলাই।