পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত শিশুদের পড়াবে এডুবট নামক রোবট

ইন্টারনেট সংগৃহীত ছবি

এবার ছোট্ট শিশুকে স্বরবর্ণ শেখাতে লাগবে আর না গৃহশিক্ষক। এছাড়া যেতে হবে না স্কুলেও। ঘরেই শিশুদের নার্সারি থেকে পঞ্চম শ্রেণির বইয়ের ছড়া কিংবা গল্প পড়াবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট এডুবট। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট এডুবট এর উদ্ভাবকদের দাবি, রোবটটিতে রয়েছে নার্সারি থেকে পঞ্চম শ্রেণির সব বইয়ের ডাটা। জিজ্ঞেস করলেই, এডুবট বাংলা কিংবা ইংরেজি দুই ভাষাতেই বলবে ছড়া- গল্প। উদ্ভাবকরা বলছেন, রোবটটি চলতি বছরেই বাণিজ্যিকভাবে বাজারজাত করা হবে।

এই রোবটটি শুধু সৌজন্যবোধ কিংবা নিজের পরিচয় নয়, শিশুদেরও পড়াবে। আর শুধু বাংলা নয়, ইংরেজিতেও সমান পারদর্শী এডুবট। জোকসও বলতে পারে এই রোবটটি। গাণিতিক প্রশ্নের জবাবও দেয় নির্ভুলভাবে। তবে এখানেই মুগ্ধতার শেষ নয়; আপনার শিশুকে আনন্দ দিতে শেখাবে নাচও।

বিশেষ এই রোবটের উদ্ভাবক বাংলাদেশ ইউনির্ভাসিটি অফ বিজসেন টেকনোলজি-বিইউবিটি এর শিক্ষার্থী আহসানুল আকিব জানালেন, এডুবটে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে সংযোগ হয়েছে এপিআই প্রযুক্তির। যা ভয়েস কমেন্টকে টেক্সট আকারে পৌঁছে দেয় এডুবটের কাছে। এছাড়া রোবটটিতে কিউআর দেয়ায় কোন তথ্য না জানলে তা গুগলে সার্চ করবে। গুগল থেকে টেক্সট নিয়ে ভয়েসে রূপান্তর করে সঙ্গে সঙ্গে বলে দেবে।

এদিকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের কথা মাথায় রেখে রোবটিক্সে সক্ষমতা বাড়াতে সবোর্চ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে। তরুণ উদ্ভাবক আহসানুল আকিব জানান, তার কাছে এডুবটের পাশাপাশি রেষ্টুরেন্টের জন্য ৪টি বাণিজ্যিক রোবটের অর্ডারও এসেছে।