বাইডেন-কমলাকে বিশ্বনেতাদের শুভেচ্ছা

Biden and Kamala

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন জো বাইডেন। একইসঙ্গে দেশটির ইতিহাসে প্রথম নারী ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন কমলা হ্যারিস।

শপথ নেওয়ার পর থেকেই তাদের শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা। এ তালিকায় রয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা, চিলির প্রেসিডেন্ট সেবাস্তিয়ান পিনেরা, মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ অবরাডোর, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং পোপ ফ্রান্সিস।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন। জাপান এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বন্ধুত্ব অত্যন্ত গভীর।

সেবাস্তিয়ান পিনেরা বলেন, আজ বাইডেন ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব বুঝে নিলেন। আমি তাঁর জন্য মঙ্গল কামনা করছি।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে অভিনন্দন। বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পৃক্ততার মধ্যদিয়ে অংশীদারিত্ব গড়ে তোলা, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে লড়াই, জনস্বাস্থ্যের উন্নতি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই এবং অঞ্চল ও এর বাইরে শান্তি প্রতিষ্ঠায় পাকিস্তান-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে শক্তিশালী অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করার অপেক্ষায় রয়েছি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জো বাইডেন এবং কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়ে বেশকিছু টুইট করেছেন।

ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মাইকেল দু’জনের প্রতি শুভকামনা জানিয়েছেন।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন টুইটারে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথগ্রহণের জন্য জো বাইডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে তাদের ঐতিহাসিক অভিষেকের জন্য অভিনন্দন। জলবায়ু পরিবর্তন থেকে শুরু করে কোভিড পর্যন্ত যেসব বিষয় আমাদের সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ, সেসব ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সঙ্গে কাজ করার অপেক্ষায় রয়েছি।

সদ্য সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আমলে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠা ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ভিডিওবার্তা পোস্ট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্টকে।

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ বলেন, আজকের দিনটা চমৎকার। জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিসের প্রশাসন যাত্রা শুরু করল। আমরা গণতন্ত্র এবং আরও ন্যায্য, টেকসই ও সর্বাত্মক বিশ্বব্যাপী শাসন ব্যবস্থার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করব।

এছাড়াও বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিয়েন, ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ, ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস প্রমুখ।