চট্টগ্রামে পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসা, আটক ৫

Khulshi

চট্টগ্রামের খুলশী থানাধীন ওমেন কলেজ মোড় সংলগ্ন এলাকায় পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসা পরিচালনা ও সেখানে শিশুদের যৌনকাজে বাধ্য করার অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। আটক আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসা পরিচালনা ও সেখানে শিশুদের যৌনকাজে বাধ্য করার অভিযোগে আটক দুইজন হলো- রহিমা আক্তার ডলি (৪৯) ও ইয়াসমিন আক্তার মুন্নি (৪০)। রহিমা আক্তার ডলি দীর্ঘদিন ধরে লাগজারি বিউটি পার্লার নাম দিয়ে ঘরের সামনের অংশের একটি রুমে পার্লার সাজিয়ে ভেতরে এ অসামাজিক কাজ করে আসছিল বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ জোন) পরিত্রান তালুকদার।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রনব চৌধুরী বলেন, খুলশী থানাধীন ওমেন কলেজ মোড় সংলগ্ন লায়ন্স চক্ষু হাসপাতাল গলি খাজা মঞ্জিল তৃতীয় তলা লাগজারি বিউটি পার্লারের আড়ালে দীর্ঘদিন অসামাজিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিলেন রহিমা আক্তার ডলি। সেখানে রহিমা আক্তার ডলি ১৪ বছর বয়সী এক শিশুকে জোর করে যৌনকাজে বাধ্য করেন। পরে ওই শিশুর পরিবার পুলিশকে জানালে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে রহিমা আক্তার ডলি ও তার সহযোগী ইয়াসমিন আক্তার মুন্নিকে আটক করে।

তিনি বলেন, ভুক্তভোগী শিশুকে সেখানে নিয়ে যাওয়া আরেক নারীকে আটক করা হয়। অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে আটক করা হয়। তাদের হাতেনাতে আটক করা হয়। এ ঘটনায় মানবপাচার আইনে দুইটি মামলা দায়ের করা হয়।