কুমারডুগীতে আ. লীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতের পর পানিতে চুবিয়ে হত্যা

Chandpur

আজিজুর রহমান ভুট্টো (৫০) নামের এক আওয়ামী লীগ নেতাকে চাঁদপুর সদরে ছুরিকাঘাতের পর পানিতে চুবিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার কুমারডুগী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আজিজুর শাহ মাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি। তিনি একজন সার ব্যবসায়ী।

কুমারডুগী এলাকার দুই প্রত্যক্ষদর্শী বাবুল খান ও আজমির খান বলেন, গতকাল রাতে আজিজুর মোটরসাইকেলে করে বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে একদল দুর্বৃত্ত তাঁর উপর হামলা করেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা তাঁর গলায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ছুরিকাঘাত করেন। পরে তাঁকে পাশের পুকুরে ফেলে চোবান। আশপাশের লোকজন ছুটে গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সদর হাসপাতালের নিয়ে যান। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে রাখা হয়েছে।

শাহ মাহমুদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামুছুজ্জামান পাটওয়ারী বলেন, আজিজুর এলাকায় মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন। এ কারণে মাদকসেবীরা সংঘবদ্ধ হয়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটাতে পারেন বলে তাঁর আশঙ্কা।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী বলেন, আজিজুরের সঙ্গে জমি নিয়ে পারিবারিক বিরোধ আছে। এর জেরে এই হত্যাকাণ্ড কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, আজিজুর রহমান ভুট্টোকে কারা কী কারণে হত্যা করেছেন, তা বের করতে চাঁদপুর জেলা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা সংস্থা কাজ শুরু করেছে। এ ঘটনায় চাঁদপুর মডেল থানায় একটি মামলার প্রক্রিয়া চলছে। তবে পুলিশ এখনো এই ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি।