৫ দফা দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের বিক্ষোভ সমাবেশ

Progressive Student Alliance

আজ সোমবার সকাল ১১ টা, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে এক সেমিস্টারের টিউশন ফি মওকুফ , যথাযথ আয়োজন ছাড়া অনলাইল ক্লাস বাতিল ও ছাত্রদের মেস ভাড়া -বাড়ি ভাড়া মওকুফে রাষ্ট্রীয় প্রজ্ঞাপন জারীসহ ৫ দফা দাবিতে প্রগতিশীল ছাত্র জোট বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে । উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন প্রগতিশীল ছাত্র জোটের সমন্বয়ক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা। আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবির, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দীন প্রিন্স প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, সমগ্র বিশ্বের ন্যায় করোনা সংক্রমণে বাংলাদেশও আক্রান্ত। বর্তমানে বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ মাস টান্সমিশন পর্যায়ে আছে। সাম্প্রতিক সময়ে আমরা প্রত্যক্ষ করেছি যে, করোনা টেস্টের সংখ্যা যত বাড়ছে, তত বেশি সংখ্যায় করোনা সংক্রমিত মানুষ সনাক্ত হচ্ছেন। ফলে এক ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে শ্রমজীবী মানুষদের। তাদের কাজ নেই, কোন সঞ্চয়ও নেই। ফলে ঘরে খাবারও নেই। বাংলাদেশের বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই এসেছে এসব নিম্নবিত্ত পরিবার থেকে।
Progressive Student Alliance

করোনা প্রকোপে তাদের শিক্ষা জীবন আজ অনিশ্চিত। শিক্ষার্থীদের বড় একটা অংশ টিউশন করে নিজেদের খরচ চালান। এখন করোনা কালীন সময়ে তারা টিউশন করতে পারছেন না। কিন্তু বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যবসায়িক স্বার্থে অনলাইন ক্লাস-পরীক্ষা নেওয়ার আয়োজন চলছে। এই মহামারী পরিস্থিতিতেও বেতন-ফিসহ সেমিস্টার ফি নেওয়ার পাঁয়তারা চলছে। সমাবেশ থেকে বক্তারা শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন রক্ষার্থে নিম্নোক্ত দাবি তুলে ধরেন।

১ . এই বছর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন-ফি মওকুফ করতে হবে।
২ . বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সেমিস্টারের টিউশন ফি মওকুফ করতে হবে।
৩ . শিক্ষার্থীদের বাসা ভাড়া মওকুফে প্রজ্ঞাপন ও বরাদ্দ দিতে হবে।
৪ . আয়োজন ছাড়া অনলাইন ক্লাস নেওয়া চলবে না।
৫ . অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের তালিকা করে আর্থিক সহযোগিতা করতে হবে।