শিক্ষার্থীদের অবরোধে রাজধানীজুড়ে তীব্র যানজট

রাজধানীতে যানজটের চিত্র নতুন কিছু নয় তবে সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস রবিবারের চিত্রটা ছিল ভিন্ন। দিনের শুরুতেই সড়কে দেখা দেয় তীব্র যানজট। দিন যত গড়িয়েছে সেই তীব্রতা আরও বেড়েছে। এতে প্রচণ্ড দুর্ভোগে পড়েন নগরবাসী।

রবিবার সকাল নয়টা থেকে পরীক্ষার ফল প্রকাশসহ পাঁচ দফা দাবিতে নীলক্ষেতে সড়ক অবরোধ করে ঢাকা অধিভুক্ত সাতটি কলেজের শিক্ষার্থীরা। আসাদগেট ক্রসিং থেকে নিউমার্কেটের দিকে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে স্থবির হয়ে পড়ে আশপাশের সব সড়ক। সেই প্রভাব পড়ে রাজধানীজুড়ে।

সরেজমিনে রাজধানীর মিরপুর রোড, আসাদগেট, কাওরানবাজার, ফার্মগেট, বিজয় সরনি এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সব সড়কেই মাইক্রোবাস, মিনিবাস, বাস, রিকশা ও ভ্যানে ঠাসা। কিন্তু সে অর্থে চলছে না কিছুই। ঠেকে ঠেকে এগোচ্ছে। কোথাও কোথাও জটলা, গাড়িচালকদের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়, কোথাও কোথাও গন্তব্যে সময়মতো পৌঁছতে না পারার আশঙ্কায় আরোহীর কপালে চিন্তার ভাঁজ। অনেকেই বিরক্ত হয়ে পায়ে হেঁটেই রওনা হন যার যার গন্তবে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাঈম হোসাইন শ্যামলী থেকে সকাল ১০টায় কলাবাগান আসার জন্য বাসে উঠেন। তার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস কলাবাগানে আসতে সময় লেগেছে প্রায় আড়াই ঘণ্টা। নাঈম বলেন, ‘আমার ক্লাস শুরু হবে ১১টায়, তাই ১০টায় বাসে চড়ে বসি। অন্যদিনের মতো আজও সে হিসেব কষে বাসা থেকে বের হয়েছিলাম। কিন্তু ক্লাসটা ধরতে পারিনি। জ্যামের কারণে আমার ক্লাসটাই মাটি হয়ে গেল।’

নাঈমের মতো অসংখ্য মানুষকে রাজধানীতে জ্যামের কারনে আজ অনেক ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। এতে করে সকাল থেকেই কর্মস্থল বা প্রয়োজন সারতে নির্দিষ্ট স্থানে যাওয়ার পথে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে সাধারণ মানুষদের। তীব্র যানজটের সাথে ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ ত্যক্ত-বিরক্ত।

রাজধানীর মিরপুর থেকে ছেড়ে আসা নিউ ভিশন পরিবহনের চালক আলম বলেন, ‘মিরপুর ১ থেকে ফার্টগেট আসতে দুই ঘণ্টা লাগছে। আল্লায় জানে, মতিঝিল যাইতে কয় ঘণ্টা লাগে?’

ফার্মগেট ট্রাফিক পুলিশ সার্জেন্ট মোস্তাক বলেন, ‘রবিবার সপ্তাহের প্রথম দিন হিসেবে এমনিতেই একটু জ্যাম হয়। কিন্তু আজকে অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেশি। আসাদগেট ক্রসিং থেকে নিউমার্কেটের দিকে সড়ক বন্ধ করে সব গাড়ি ফার্মগেটের দিকে দেয়ায় ওইটার জ্যাম সব রুটেই লেগে যায়।’

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫২ ঘণ্টা, ০৮ অক্টোবর ২০১৭
লেটেস্টবিডিনিউজ.কম/এসডিএম