জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসের ১০০টি মসজিদে আজান

ছবিঃ সংগৃহীত

করোনা থেকে বাঁচতে সাড়ে ৫০০ বছর পর প্রকাশ্যে আজানের অনুমতি দিয়েছে স্পেন। এবার স্পেনের পথ ধরে জার্মানি এই প্রথম প্রকাশ্যে মাইকে আজান দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে। একই ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে নেদারল্যান্ডসও। করোনা প্রতিরোধে মুসলমানদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশে নেদারল্যান্ডস ও জার্মানির বেশ কয়েকটি মসজিদের মাইকে আজান দেয়ার অনুমতি দেয় কর্তৃপক্ষ। ফলে জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসের ১০০টিরও বেশি মসজিদ থেকে আজানের ধ্বনি শোনা গেল। মুসলিম উম্মাহ তথা বিশ্বের মঙ্গল কামনায় আজান দেয়া হলো। জার্মানিতে বসবাসকারী তুরস্কের দুই কমিউনিটির তরফে এই ব্যবস্থা করা হয়েছিল।

জানা গেছে, মহামারী করোনাভাইরাসে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে ইউরোপ। মৃত্যুর রেকর্ডে ইতালির পরেই স্পেন। দেশটিতে ১২ হাজার ছাড়িয়েছে মৃত্যু। করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে এই স্পেনই প্রথম আজানের অনুমতি দেয়। স্পেনের পথ ধরে নেদারল্যান্ডস এবং জার্মানি তাদের দেশে অবস্থিত মসজিদগুলো থেকে মাইকে উচ্চ আওয়াজে আজান দেয়ার অনুমতি দেয়। ফলে জার্মানির ৫০ টিরও বেশি এবারই প্রথম মাইকে উচ্চ আওয়াজে আজান দেয়া হয়। মাইকে উচ্চ আওয়াজে আজান শুনে মসজিদের আশপাশের অসংখ্য মানুষ রাস্তায় নেমে পড়ে।

করোনাভাইরাসের প্রকোপে যেসব দেশ বেশি আক্রান্ত সে সব দেশের মধ্যে জার্মানিও একটি। আমেরিকা, ইতালি ও স্পেনের পরেই জার্মানির অবস্থান। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৯৬ হাজার ৯২ জন আক্রান্ত। মারা গেছে ১ হাজার ৪৪৪ জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছে ২৬ হাজার ৪০০ জন। অন্যদিকে নেদারল্যান্ডসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ হাজার ৬২৭। মারা গেছে ১ হাজার ৬৫১ জন। সুস্থ হয়েছে মাত্র ২৫০ জন।