রিয়ালকে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে চেলসি

টুইটার সংগৃহীত ছবি

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল এবার ‘অল ইংলিশ’। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে চেলসি ফাইনাল নিশ্চিত করেছে আর আগের রাতে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে সেমি-ফাইনালের ফিরতি লেগে স্বাগতিকরা রিয়ালকে হারিয়েছে ২-০ গোলে। রিয়ালের মাঠে প্রথম লেগে ১-১ গোলে ড্র করা ইংলিশ ক্লাবটি দুই লেগ মিলিয়ে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে।

নিজেদের মাঠে চেলসি ম্যাচের পুরো সময়টাই একক আধিপত্য দেখায়। শুধু মাঠের খেলাই নয়, লড়াই ছিল দুই কোচের মধ্যেও। লড়াই ছিল চেলসির বর্তমান জার্মান কোচ টমাস টুখেল ও রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদানের মধ্যে। কেন না, জার্মান এই কোচের বিপক্ষে জিদান কখনও জিততে পারেনি।

শুরু থেকেই রিয়ালকে চেপে ধরা চেলসি প্রথমার্ধেই সুযোগ কাজে লাগায়। ২৮ মিনিটের মাথায় কাই হাভার্টজের নেয়া শট বারে লেগে ফিরে আসলে সেটিই আবার হেড দিয়ে গোল পোস্টে জড়ান ওয়ার্নার। বাকি সময়টায় আর কোনো গোল না হলে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে বিরতিতে যায় চেলসি।

দ্বিতীয়ার্ধের দ্বিতীয় মিনিটেই হাভার্টজ ব্যবধান দ্বিগুণ করে নিতে পারতেন। তবে কোর্তোয়ার দৃঢ়তায় এবারের মতো রক্ষা পায় রিয়াল। তবে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে চেলসির লেগে যায় ম্যাচের ৮৫ মিনিট পর্যন্ত। ডানদিক থেকে পুলিসিকের বাড়িয়ে দেয়া বল বক্সে পান ম্যাসন মাউন্ট। সুযোগ কাজে লাগিয়ে ডান পায়ের শটে জালে জড়ান বল।

তাতেই ৮ মৌসুম পর চেলসির উয়েফা ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যায়। ২০১১-১২ মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে ইউরোপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর আবারও টুর্নামেন্টটির ফাইনালে উঠল চেলসি। আগামী ২৯ মে তুরস্কের ইস্তানবুলে শিরোপা লড়াইয়ে নামবে দুই ইংলিশ ক্লাব ম্যানসিটি ও চেলসি।