প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস শনাক্তকরণের অনুমতি পেল নোবিপ্রবি

Noakhali Science and Technology University

করোনাভাইরাস শনাক্তকরণের অনুমতি পেয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি)। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ল্যাবে এই শনাক্তকরণ কার্যক্রম পরিচালিত হবে। রবিবার (২৬ এপ্রিল) করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ ও মোকাবেলায় গঠিত চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সদস্যসচিব ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর স্বাক্ষরিত এক সংশোধিত প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ তথ্য জানা যায়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, কভিড-১৯ শনাক্তকরণের জন্য বর্তমানে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ চলমান রয়েছে। অতি শিগগিরই নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) করোনা শনাক্তকরণ প্রক্রিয়া চালু হবে।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়েছে, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর ও নোয়াখালী জেলা থেকে নমুনা নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রেরণ করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে পিসিআর টেস্ট চালু হওয়া সাপেক্ষে এ প্রজ্ঞাপন কার্যকর হবে।

প্রজ্ঞাপনে প্রতিদিনের কভিড-১৯ শনাক্তকরণ বা পিসিআর টেস্ট রিপোর্ট স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ও সভাপতি টেকনিক্যাল কমিটি, ল্যাবরেটরি ইনভেস্টিগেশন, কভিড-১৯ এর ইমেইল আইডি, আইইডিসিআর এর পরিচালকের ই-মেইল আইডিতে প্রেরণের জন্য ল্যাব ইনচার্জকে অনুরোধও করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে দুটি আরটি-পিসিআর মেশিন রয়েছে। মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ ল্যাবে পিসিআর মেশিন স্থাপন করবে। আমরা এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনসহ সর্বসাধারণের সহযোগিতা কামনা করি। আশা করি অতিদ্রুত সময়ের মধ্যেই নোবিপ্রবির ল্যাবে করোনা শনাক্তকরণ কার্যক্রম চালু হবে।