খুলনায় কলেজশিক্ষক হত্যা মামলায় দুই আসামির মৃত্যুদণ্ড

The death penalty

বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম নগর খুলনার বহুল আলোচিত কলেজশিক্ষক চিত্তরঞ্জন বাইন হত্যা মামলার দুই আসামি রাজু মুন্সি ওরফে গালকাটা রাজু ও তুহিন গাজীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তাদের মধ্যে রাজু মুন্সি ওরফে গালকাটা রাজু পলাতক রয়েছেন।

অন্যদিকে, এই মামলার অপর আট আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনা জননিরাপত্তা বিঘ্নকারী অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাইফুজ্জামান হিরো এ রায় ঘোষণা করেন। শহীদ শেখ আবুল কাশেম স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক ছিলেন চিত্তরঞ্জন বাইন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, প্রভাষক চিত্তরঞ্জন বাইন পরিবারসহ শের-এ-বাংলা আমাতলা রোডের একটি বাড়িতে বসবাস করতেন। ২০১৭ সালের ৬ জানুয়ারি তার স্ত্রী দুই মেয়েকে নিয়ে শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে যান। ১৪ জানুয়ারি পিটিআই মোড়স্থ কলেজ থেকে রাত সাড়ে ১০টায় বাসায় ফেরেন চিত্তরঞ্জন। ওই রাত থেকে ১৫ জানুয়ারি সকাল সোয়া ১১টার মধ্যে যেকোনও সময় দুর্বৃত্তরা ডাকাতির উদ্দেশ্যে তার বাসার জানালার গ্রিল কেটে ঘরের ভিতরে ঢোকে। পরে তাকে হত্যা করে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কারসহ দুই লাখ টাকার মালামাল লুট করে পালিয়ে যায়। ওই ঘটনায় পরের দিন নিহতের ছোটভাই অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

একই বছরের ১২ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খুলনা থানার এসআই কামাল উদ্দিন ১০ জন আসামির নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।